Connect with us

Book Review

দ্য এইট

ইয়ের নাম : দ্য এইট

লেখকের নাম: ক্যাথারিন নেভিল

অনুবাদক : মোহাম্মদ নাজিমুদ্দিন

প্রকাশনী : বাতিঘর প্রকাশনী

বইয়ের মূল্য : ৪৮০ টাকা মাত্র

ধরণ : থ্রিলার

 

*** হাজার বছর ধরে বিস্মময়কর এক সিক্রেট ফর্মুলা লুকিয়ে রাখা হয়েছে  ফ্রাঙ্কিশ সাম্রাজ্যের বিখ্যাত রাজা শার্লেমেইনের কিংবদন্তীতুল্য দাবাবোর্ডে। সেই রহস্যময় সিক্রেট ফর্মুলাটি হাতে পাওয়ার জন্য চেষ্টা করে গেছেন বহু রথী-মহারথী।  তাদের মধ্যে রয়েছেন- নেপোলিয়ন বোনাপার্ত,  রুশো, ভলতেয়ার, রাশিয়ান সম্রাজ্ঞী ক্যাথারিন দি গ্রেট , গণিতজ্ঞ ফিবোনাচ্চি, নিউটন, পিথাগোরাস, কবি উইলিয়াম ওয়ার্ডসওয়ার্থ ও ব্লেক,  রোবসপিরিয়ে সহ আরো অনেকে যাদের ফিকশনাল উপস্থিতি বইটিতে পাওয়া যায়।

এটি একটি দুই স্তর বিশিষ্ট রহস্যপোন্যাস যেখানে দুই সময়ের দুইজন নারী এই সিক্রেট উন্মোচনের মিশনে অবতীর্ণ হন।

একটি  ঘটনা শুরু হয় ১৭৯০ সালে অর্থাৎ, ফরাসি বিপ্লব পরবর্তী সময়কালে- মিরিয়ে নামের এক তরুণী যে কিনা মন্তগ্লেইন অ্যাবি (রাজা শার্লেমেইন কর্তৃক নির্মিত অ্যাবি ) এর একজন শিক্ষানবিশ নান, সে এই রহস্যের সাথে জড়িয়ে যায়। সে এবং তার খালতো বোন  ভ্যালেন্টাইন সহ অন্যান্য নানদের উপর দায়িত্ব পড়ে সেই  শার্লেমেইনের কিংবদন্তীতুল্য দাবাবোর্ড (মন্তগ্লেইন সার্ভিস নামে পরিচিত)  এর ঘুঁটিগুলো এবং এর সাথে সম্পৃক্ত সিক্রেট টা বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে দিতে হবে। প্রাণের বিনিময়ে হলেও তাদের রক্ষা করতে হবে এগুলো।

অপর ঘটনাটি শুরু হয় ১৯৭২ সালে— ২৩ বছর এর এক তরুণী যার নাম ক্যাথারিন ভেলিস,  যে কিনা একজন  কম্পিউটার জিনিয়াস,গণিত ও সঙ্গীত বিশেষজ্ঞ। অনিচ্ছাসত্ত্বে ও এই খেলায় তাকে অবতীর্ণ হতে হয়।  ঘটনাচক্রে সে ছুটে যায় রহস্যে ঘেরা দুর্গম সাহারা মরুভূমিতে (আলজেরিয়া অংশে)  যেখানে রয়েছে রহস্যের মূল চাবিকাঠি।

 

৬০৭ পৃষ্ঠার এই বইটিতে লেখিকা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আকর্ষণ ধরে রাখতে সমর্থ হয়েছেন। বইটি পড়তে পড়তে আপনি ঘুরে আসবেন – সাহারা মরুভূমি, ফ্রান্স,  আলজেরিয়া, ভূমধ্যসাগর, নিউইয়র্ক, লন্ডন, রাশিয়া, কর্সিকা দ্বীপ সহ আরও বহু জায়গায়। ইতিহাস,ফিকশন, শব্দ আর সঙ্গীতের ধাঁধাঁ কি নেই বইটাতে। পাজল আর সাসপেন্সে পরিপূর্ণ একটি থ্রিলার।

গল্পের শেষে আপনাদের সবার জন্য রয়েছে একটা চমক।  দুই সময়ের দুই নারীর রহস্যময় এই খেলার সমাপ্তি ঘটেছে এক বিন্দুতে। নিশ্চয়তা দিয়ে বলতে পারি বই টি পড়ে আপনি হতাশ হবেন না। বইটি পড়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে অভিভূত হয়েছি। তো চলুন না পাঠক, আপনারাও সামিল হোন – ৬৪ বর্গ আর ৩২ ঘুঁটির এই রহস্যময় খেলায়।

ধন্যবাদ।

 

_____________________________________

মোঃ নোমান আব্দুল্লাহ্

৩১ আগস্ট, ২০১৮

 

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *